অবৈধ বালু উত্তোলনের ছবি তোলায় সাংবাদিককে মারপিট, থানায় অভিযোগ

0 ৪৯

তালা অফিস থেকে নজরুল ইসলাম: সাতক্ষীরা জেলার কলারোয়ায় উপজেলায় ড্রেজার মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে ঘের থেকে বালু উত্তোলন কালে ছবি তোলায় তালা প্রেসক্লাবের প্রচার সম্পাদক খান নাজমুল হুসাইন কে মারপিট করার অভিযোগ উঠেছে।

তিনি সাতক্ষীরা সদর উপজেলার পলাশপোল গ্রামের আবু হোসেন খান এর ছেলে ও খুলনা হতে প্রকাশিত দৈনিক খুলনাঞ্চল পত্রিকার সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্বরত আছেন। এ ঘটনায় কলারোয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।

স্থানীয় ও অভিযোগ সূত্রে প্রকাশ, সাতক্ষীরা জেলার কলারোয়া উপজেলার মুরারিকাটি মোস্তাকের ঘের হতে কোন নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করেই অবৈধ পন্থায় ড্রেজার মেশিন দিয়ে মিলন মোল্যা, লাল্টু মোড়ল, কামাল সরদার বালু উত্তোলন করছে। এর প্রেক্ষিতে গত ইংরেজি ০২/০৫/২২ তারিখ দুপুর আনুমানিক ২ ঘটিকায় ভুক্তভোগী ঐ সাংবাদিক ঘটনা স্থলে পৌছে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের দৃশ্য ক্যামেরার ধারণ করেন। এ সময় ওৎ পেতে থাকা উল্লেখিত ব্যক্তিরা ক্যামেরায় তোলা ছবি ডিলেট করতে বলেন। উক্ত প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজের এক পর্যায় তার ক্যামেরা ম্যান কামরুল ইসলাম এর থেকে জোরপূর্বক ক্যামেরা কেড়ে নিয়ে তাদের হাতে থাকা লোহার রড ও লাটি সোটা দিয়ে খান নাজমুল ও কামরুল কে বেধড়ক মারপিঠ গলায় ঝুলিয়ে রাখা পত্রিকার পরিচয় পত্র কেড়ে নেয়।

উক্ত সময় ভুক্তভোগীদের ডাকচিৎকারে লোকজন ছুটে আসলে মিলন মোল্যা, লাল্টু মোড়ল ও কামাল সরদার সাংবাদিক নাজমুলকে উদ্দেশ্য করে জীবন নাশের হুমকি সহ অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

আহত নাজমুল ও কামরুল কে স্থানীয়রা উদ্ধার করে কলারোয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে তারা প্রথমিকভাবে চিকিৎসা গ্রহণ করেন। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী সাংবাদিক খান নাজমুল হুসাইন প্রশাসন সহ সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের সহযোগীতা ও আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এদিকে তালা প্রেসক্লাবের প্রচার সম্পাদক খান নাজমুল হুসাইন কে সংবাদ সংগ্রহ করা সময় মারপিট করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন তালা প্রেসক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক এসএম নজরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক জলিল আহমেদ সহ সকল সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ ।অতিবিলম্বে দোষীদের আইনের আওতায় এনে শাস্তি প্রদান দাবি জানান উক্ত নেতৃবৃন্দ।


error: Content is protected !!