উজিরপুর বাজারে সরকারি জমিতে রাতারাতি ঘর নির্মাণের অভিযোগ

কর্তৃক Ahadur Rahman Jony
০ কমেন্ট 32 ভিউস

হাফিজুর রহমান, কালীগঞ্জ থেকে: জলিল বিশ্বাস নামে এক ভূমিদস্যু চেয়ারম্যানের নাম ভাঙিয়ে এবং তহসিলদার কে মোটা অংকের টাকায় ম্যানেজ করে বাজারের পেরি পেরি ভুক্ত সরকারি খাস জমি দখল করে জোরপূর্বক রাতের আঁধারে দোকান ঘর নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার চাম্পাফুল ইউনিয়নের উজিরপুর বাজারের সরকারি পেরি পেরি ভুক্ত জায়গায় গত মঙ্গলবার রাত ১২টার সময় এ ঘটনা ঘটে। তবে টাকা নেওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে সহকারি তোহাসিলদার রেজাউল ইসলাম টাকা নেওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে সাংবাদিকদের জানান তিনি জানতে পেরে বিকালে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিলেও রাতের আঁধারে চুরি করে ঘর তৈরি করেছে শুনেছি। উজিরপুর বাজার কমিটির সভাপতি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক গাইন এবং সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম সহ একাধিক ব্যক্তি জানান এখান থেকে ১৫/২০ বছর আগে ওই স্থানে উজিরপুর দক্ষিণপাড়া যুব সংঘ নামে একটি ক্লাব ঘর ছিল। ঘরটি ব্যবহার না করায় পরিত্যাক্ত ফাঁকা জায়গা পড়েছিল। উক্ত ক্লাবের সদস্য ছিল জলিল বিশ্বাস। ক্লাবের সদস্যদের সঙ্গে প্রতারণা করে উজিরপুর গ্রামের জলিল বিশ্বাস মঙ্গলবার রাতারাতি বাজারের উপর অবৈধভাবে ঘর নির্মাণ করায় ব্যবসায়ীদের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।
এ প্রসঙ্গে জলিল বিশ্বাসের নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান আমি সহকারি তহাসিলদার রেজাউল ইসলামকে টাকা দিয়ে ঘর নির্মাণ করেছি। এ ব্যাপারে বাজার কমিটির সভাপতি ও চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক গাইন বলেন ঘর নির্মাণে নিষেধ করা সত্ত্বেও রাতারাতি সে ঘর নির্মাণ করেছে। এ প্রসঙ্গে চম্পাফুল ইউনিয়ন ভূমি অফিসের তহসিলদার আব্দুল হাই এর নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন বিষয়টি আমি জানার পর চৌকিদার দিয়ে কাজ বন্ধ করার পরও সে রাতের আঁধারে ঘর নির্মাণ করেছে শুনেছি বিষয়টি নিয়ে এসিল্যান্ড সাহেবের সঙ্গে কথা বলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এদিকে ক্লাবের জায়গায় ঘর নির্মাণকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের যেকোনো সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ ঘটতে পারে। বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছে উজিরপুর বাজারের ব্যবসায়ীরা।

রিলেটেড পোস্ট

মতামত দিন

error: Content is protected !!