কালিগঞ্জে মামলা তুলে নিতে আসামীদের হুমকি : শংকিত পরিবার

কর্তৃক Ahadur Rahman Jony
০ কমেন্ট 18 ভিউস

কালিগঞ্জ (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি: কালিগঞ্জের পল্লীতে একটি হত্যা মামলা তুলে নিতে আসামীপক্ষের সন্ত্রাসীদের অব্যহত হুমকির মুখে পালিয়ে বেড়াচ্ছে বাদীর পরিবার। উক্ত ঘটনায় নিহত আক্কাজ আলীর কন্যা শরীফা খাতুন ও তার পরিবারের জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে গত ১২ জুলাই থানায় ৪৮২নং একটি সাধারণ ডায়েরী করলেও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ব্যবস্থা না নেওয়ায় নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছে বাদীর পরিবার। থানা সূত্রে জানা যায়, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গত ২৬ মে রমজানের ইফতারের পর কালিগঞ্জ উপজেলার বন্দকাটী গ্রামের মৃত মোহাম্মাদ আলীর পুত্র আক্কাজ আলী গাজী কে তার ছোট ভাই আজগার, স্ত্রী নুর জাহান ও পুত্র নুরুজ্জামান কুপিয়ে হত্যা করে। উক্ত ঘটনার পর দিন ২৭ মে নিহতের পুত্র মিজানুর রহমান বাদী হয়ে কালিগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। মামলা নং-২৯, উক্ত মামলায় কালিগঞ্জ থানা পুলিশ আসামীদের গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে পাঠায়। জেল হতে আসামী নুর জাহান গত ১ জুলাই জামিনে মুক্তি পেয়ে বাড়িতে এসে পরদিন তার পুত্র মনিরুজ্জামান এবং মুকুন্দ মধুসুদনপুর গ্রামের মৃত অমেদ গাজীর পুত্র আব্দুল জব্বারের নেতৃত্বে ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী নিয়ে বাড়িতে হামলা, ভাংচুর, ও মারপিট করে মামলা তুলে না নিলে জীবন নাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়। উক্ত ঘটনায় নিহতের কন্যা শরীফা খাতুন তার পরিবারের জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরীর পর হতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ পরিদর্শক সোহরাব হোসেন রহস্য জনক কারণে তদন্ত করবে বলে কাল ক্ষেপন করায় নিহতের পরিবার শংকিত আছে বলে এ প্রতিনিধিকে জানান। প্রসংগত কালিগঞ্জ উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের বন্দকাটী গ্রামের মৃত মোহাম্মাদ আলীর পুত্র আক্কাজ আলী গাজীর সঙ্গে সহোদর আজগার আলীর দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। গত ২৬ মে ইফতারের পর সন্ধ্যা আনুমানিক ৭টার সময় আজগর আলীর ৪টি ছাগল প্রতিবেশি আবুল কালামের ক্ষেতের পুঁইশাক খাওয়া কে কেন্দ্র করে আজগার আলীর ছাগল ৪টি প্রতিবেশি কালাম খড়ে দেয়। উক্ত ঘটনায় নিহত আক্কাজ আলী গাজী প্রতিবেশি কালামের পক্ষ নেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে আজগার আলী, স্ত্রী নুর জাহান, পুত্র নুরুজ্জামান মিলে ছোট ভাই আক্কাজ আলী গাজী কে বটি, ছুরি, দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে থানা হতে পুলিশ ঘটনাস্থল হতে আজগর আলীর স্ত্রী নুর জাহান কে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসে। উক্ত ঘটনায় নিহত আক্কাজ আলীর পুত্র মনিরুজ্জামান বাদী হয়ে চাচা আজগার আলীর চাচী নুর জাহান এবং চাচাতো ভাই নুরুজ্জামানের নামে গত ২৭ মে ১টি হত্যা মামলা দায়ের করে। মামলা নং-২৯। উক্ত মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা থানার উপ পরিদর্শক সোহরাব হোসেন গত ২৭ মে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার সময় পালিয়ে যাওয়ার পথে উজিরপুর বাজার হতে হত্যা কারী আজগার ও তার পুত্র নুরুজ্জামান কে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসে। গ্রেপ্তারকৃত আসামী আজগার আলী গত ২৮ মে সাতক্ষীরা বিজ্ঞ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত ২ এর বিচারক বিলাশ মন্ডলের নিকট ১৬৪ ধারায় হত্যার ঘটনার স্বীকারোক্তী মুলক জবান বন্দি প্রদান করে। উক্ত মামলার দীর্ঘ তদন্ত শেষে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা থানার উপ পরিদর্শক সোহরাব হোসেন গত ১০ জুলাই ৩০২/৩৪ পিসি ধারায় আসামী আজগার আলী, স্ত্রী নুর জাহান ও পুত্র নুরুজ্জামানকে অভিযুক্ত করে ১০৬নং অভিযোগ পত্র আদালতে দাখিল করেন। এর মধ্যে ২নং আসামী নুর জাহান গত ১জুলাই বিজ্ঞ আদালত হতে জামিনে মুক্ত হয়ে বাড়িতে এসে তার পুত্র মনিরুজ্জামান সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য বাদী এবং তার পরিবারের উপর হামলা ও জীবন নাশের হুমকি দিয়ে চলেছে।

রিলেটেড পোস্ট

মতামত দিন

error: Content is protected !!