চট্টগ্রামে বিশ^ পরিবেশ দিবসের আলোচনায় বক্তারা পরিবেশ বিপর্যয়ের হাত থেকে বিশ^কে রক্ষার জন্য সকলকে উদার ও একাগ্র হতে হবে

0 ৩৯

চট্টগ্রাম ব্যুরো: চট্টগ্রামের সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন সন্দীপনা কেন্দ্রীয় সংসদের সঙ্গীত, নাটক, আবৃত্তি, চারুকলা ও লোককলা বিভাগের যৌথ আয়োজনে বিশ^ পরিবেশ দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত দিনব্যাপি পরিক্রমা ও আলোচনা অনুষ্ঠান ৫ জুন কাপ্তাই বাঙাল হালিয়ায় অনুষ্ঠিত হয়। সন্দীপনার প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ভাস্কর ডিকে দাশ মামুন বাঙাল হালিয়া ঋষি মঠ উদ্যানে সকাল ১০টায় বৃক্ষ রোপনের মাধ্যমে কর্মসূচির সূচনা করেন। দলের ২৫জন সভ্য ও স্থানীয় সংস্কৃতি কর্মীগণ কর্মসূচিতে অংশ নেন। সকাল ১১টায় এক আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন- বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক বিশ্লেষক দেবব্রত দে দেবু। সম্মানিত প্রধান অতিথি ও প্রধান আলোচক ছিলেন- ঋষি মঠ অধ্যক্ষ স্বামী সনাতন গিরি মহারাজ ও বর্ষিয়ান লোক কবি কবিয়াল আবদুল লতিফ। সম্মানিত আলোচকবৃন্দের মাঝে ছিলেন- সাংবাদিক দেব প্রসাদ দেবু, অধ্যক্ষ শেখ এ রাজ্জাক রাজু, প্রধান শিক্ষক বাবুল কান্তি দাশ, সাংবাদিক মুকুল শিকদার, সাংস্কৃতিক সংগঠক মোশারফ হোসেন খান রুনু, সংগঠক উজ্জ্বল কান্তি বড়–য়া, সাংবাদিক তাজুল ইসলাম রাজু, ডা: ডি কে ঘোষ, কবিয়াল সন্তোস কুমার দে, সংগঠক প্রণব রাজ বড়–য়া, আইটি এক্সপার্ট মো: রাকিব, বাচিক শিল্পি মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী ও নাট্যকর্মী নন্দীনি দেব, এমরান হোসেন মিঠু প্রমুখ।
আলোচনায় বক্তারা বলেন, বিশ^ পরিবেশ আজ দারুনভাবে বিপর্যস্থ। ঘনীভুত ওজোনস্থরের প্রকোপ বৃদ্ধি, সমূদ্রপৃষ্টের উচ্চতা বৃদ্ধি, বনায়ন হ্রাস, ব্যাপক কার্বণ উৎপাদনের উৎসস্থাপন, নদী-জলাশয়-সমূদ্র উপকূলবর্তী এলাকায় পর্যাপ্ত বেড়িবাঁধ নির্মিত না হওয়া, ঘনঘন জলোচ্ছ¡াস-প্লাবন-ভূমিকম্পের কারণে নির্মিত বেড়িবঁাঁধ ধ্বংস হয়ে বিশ^ মানবতা, মানুষের সমাজ আজ মানবেতর ভাবে হুমকির মুখে। অনিয়ন্ত্রিতভাবে বিশ^ পরিবেশ রক্ষায় বুনিয়াদি পরিকল্পনা ভেস্তে যাওয়ার কারণে তৃতীয় বিশে^র দেশগুলো বিশে^র মানচিত্র থেকে হারিয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। পরিবেশ রক্ষায় সবুজ বনায়ন, স্থায়ী নগর ও শহর রক্ষা বাঁধ নির্মাণসহ সামগ্রিক আয়োজনের মধ্যদিয়ে একটি মানবিক সমাজ গঠনের জন্য বৈশি^ক অবকাঠামো দাড় করে বাস্তব মুখী পরিকল্পনা হাতে নেওয়ার প্রয়োজন। যত্রতত্র যথেচ্ছ পলি ইথিলিন জাতীয় উৎপাদনের লাগাম টেনে ধরার এখনই সময়। তা না হলে অকাতরে জনজীবন, প্রাণীজীবন, ভূসম্পদ ও প্রাকৃতিক সম্পদ বিসর্জন হবে।
দিবসটি উপলক্ষে সংগঠনের পক্ষ থেকে বাঙাল হালিয়ার পাহাড়ী জনপদে গণ সচেতনতা মূলক কবিগান ও বৃক্ষ রোপন কর্মসূচি পালন করা হয়। স্বত:পণোদিত হয়ে দলের সাথে স্থানীয় যুব সমাজ, স্কুল-কলেজ পড়–য়া ছাত্র-ছাত্রীরা অংশগ্রহণ করেন এবং সব শেষে দলবদ্ধ হয়ে পরিবেশ রক্ষায় বৃক্ষ রোপনের জন্য শপথ গ্রহণ করেন।