তালায় খাল খননের নামে সরকারী রাস্তা কাটার অভিযোগ

0 ৭২

নিজস্ব প্রতিবেদক: তালার মাগুরা ইউনিয়নের বাইনতলা খাল পূর্ন খননের নামে সরকারী রাস্তা কেটে সাবাড় করে দিয়েছে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার উত্তম কুমার সেন ( বাবুলাল)।এ ঘটনায় সাধারন জনসাধারনের চলাচলের জন্য চরম ভোগান্তি পোহাতে হচেছ বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। রাস্তা কাটার কারনে সাধারন মানুষ খাল দিয়ে চলাচল করলেও একটু ভারী বৃষ্টি হলেই কি ভাবে চলাচল করবে এই নিয়ে হাটবাজারে চলছে গুজ্ঞন । খাল খননের নিদিষ্ট সময় সীমা নির্ধারন থাকলেও তা খনন কাজ শেষ হয়েছে সময়ের আগেই । বর্তমানে সেখানে রয়েছে উপজেলা মৎস্য দপ্তরের বাস্তবায়নে ১৬ লক্ষ টাকা ব্যয়ে পূর্ন খননের সাইনবোর্ড।

সরজমিনে গেলে চাদকাটি মৎস্য সমবায় সমিতির সভাপতি ছানার আলী, সদস্য আব্দুর রশিদ সহ অনেকে জানান, বাবুলাল যে খালটি কাটার দায়িত্ব নিয়ে এসেছে সে বিষয়ে সমবায় ও মৎস্য কর্মকর্তরা জানান, ওই খাল কাটার সমস্ত দায়িত্ব মৎস সমিতির লোকজনের এবং ইউপি সদস্য ইনছাপ মোল্যার ।

কিন্তু বাবুলাল যেমন তেমন ভাবে খাল খনন না করেই কাজের একটি অংশ টাকা হজম করে ফেলেছে ইতিমধ্যে। একই এলাকার মনিরুদ্দীন মোল্যা জানান, ঈদের আগে রাস্তা কেটে রেখেছে বাবুলাল কিন্তু সেটা ঠিকও করছে না। এদিকে জনগন চরম ভোগান্তি পাচ্ছে । আমরা বার বার বাবুলালকে বলেছি তিনি কোন কথাই কর্নপাত করেন না। অবশেষে তালা উপজেলার এক সরাকারী কর্মকর্তার চাপে পড়ে ৫/৬হাত রাস্তা ঠিক করেছে মাত্র।

নাম প্রকাশে অনিইচ্ছুক স্থানীয় এক যুবলীগ কর্মী জানান, উত্তম সেন ওরফে বাবুলালের বিরুদ্ধে ইতিপ‚র্বে খাল খননের নামে বহু দ‚র্নীতির অভিযোগ রয়েছে। সে তালার মৎস কর্মকর্তা সহ কতৃপয় ব্যাক্তিকে ম্যানেজ করে যেন তেন ভাবে খাল খনন করে লক্ষ লক্ষ আত্মসাৎ করে আসছে বিষয়টি এখন ওপনে সিক্রেট। বিষয়টি নিয়ে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার উত্তম সেন ওরফে বাবু লালের সাথে কথা বললে তিনি জানান, রাস্তা কাটা হয়েছিল সেটি আবার ঠিক করে দিয়েছি । খালের কাজ চলমান রয়েছে।

তালা উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা স্নিগ্ধা খান বাবলী জানান রাস্তা কাটার বিষয়টি আমার জানা নেই। বিষয়টি আমি সরজমিনে তদন্ত করে ব্যাবস্থা নিব।তবে খাল খননের কাজের সময় সীমা একটু বাড়ানো হয়েছে। তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার বিশ্বাস জানান, বিষয়টি খতিয়ে দেখে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।


error: Content is protected !!