নলতায় নৌকার নির্বাচনী অফিসে আগুন দেওয়ার ঘটনায় পরস্পর বিরোধী অভিযোগ

0 ১০৬

হাফিজুর রহমান, কালিগঞ্জ থেকে: নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই সহিংসতা, হানাহানি, বোমা হামলা, অগ্নিসংযোগ বেড়েই চলেছে। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গভীর রাতে নৌকার নির্বাচনী অফিসে আগুন দেওয়ার ঘটনা নিয়ে নৌকা এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে পরস্পর বিরোধী অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৩টার সময় সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার নলতা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের পশ্চিম পাইকাড়া গ্রামে নৌকার নির্বাচনী অফিসে। এসময় অফিসে আগুন সহ বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি পুড়িয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। নলতা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনীত নৌকার প্রার্থী আবুল হোসেন পাড় সাংবাদিকদের জানান, স্বতন্ত্র প্রার্থী সন্ত্রাসীদের গডফাদার চশমা প্রতীকের আজিজুর রহমানের পক্ষ নিয়ে তার কর্মীরা নৌকার কর্মী সমর্থকদের প্রতিনিয়ত হুমকি ধামকি দিয়ে আসছেন। গত বুধবার রাতে তারা তার কর্মী জয়নাল, রশিদ, মিজান সহ আরো একাধিক ব্যক্তিকে প্রকাশ্যে হুমকি প্রদান করেন। তিনি আরো বলেন, রাতের আধারে পশ্চিম পাইকাড়া গ্রামের ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নির্বাচনী অফিসে আগুন দিয়ে অফিসে থাকা বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি সহ অফিসে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থী আজিজুর রহমানের লোকজন। খবর পেয়ে নলতায় অবস্থিত টহল পুলিশ এসে আগুন নিভিয়ে ফেলে। এ ঘটনায় তিনি মামলা করবেন বলে সাংবাদিকদের জানান।

অন্যদিকে প্রতিপক্ষ স্বতন্ত্র প্রার্থী চশমা প্রতীকের আজিজুর রহমান পাল্টা অভিযোগ করে সাংবাদিকদের জানান, নৌকার প্রার্থী আবুল হোসেন পাড় নিজের পরাজয় জেনে ও জনসমর্থন হারিয়ে তার নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে এলাকা ছাড়ার একটি কৌশল হিসেবে পরিকল্পিত ভাবে এই জঘন্য ঘটনা নৌকা প্রতীকের কর্মী সমর্থকরা ঘটিয়েছেন। এ ব্যাপারে তিনি জেলা প্রশাসক ও জেলা পুলিশ সুপারের তদন্তপূর্বক আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেন। খবর পেয়ে সকালে থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম মোস্তফা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। দুপুরে সাতক্ষীরা জেলা প্রাশসক হুমায়ুন কবির ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেন। ঘটনার বিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম মোস্তফা জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এ ব্যাপারে এখনো কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


error: Content is protected !!