প্রধান শিক্ষককে চেয়ার দিয়ে পেটালেন কমিটির সভাপতি

0 ২০৫

সাতনদী অনলাইন ডেস্ক: পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার দক্ষিণ গৈয়াতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এসএম শামসুদ্দিনকে চেয়ার দিয়ে পিটিয়ে আহত করেছেন বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো. হান্নান খান।

শুক্রবার (০৮ জানুয়ারি) জুমার নামাজের পরে বিদ্যালয় কক্ষে সভাপতি হান্নান খান এ ঘটনাটি ঘটান বলে অভিযোগ উঠেছে।

আহত শিক্ষক এসএম শামসুদ্দিন জানান, তিনি বিদ্যালয় কক্ষে বসে উপবৃত্তির তালিকা করছিলেন। এসময় হান্নান খান এসে স্কুলের অপর ভবনের একটি কক্ষে বিদ্যুতের সাইড কানেকশন দিতে বলেন। পরিত্যক্ত ওই কক্ষে সভাপতির ভাই হামিদ খান দখল করে সেই কক্ষে থাকনে। তখন প্রধান শিক্ষক তাকে ম্যানেজিং কমিটির রেজুলেশন দিতে বলেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রথমে গালাগাল পরে চেয়ার দিয়ে আঘাত করে। হাত দিয়ে চেয়ার প্রতিহত করতে গেলে বাম হাতের তালু গুরুতর জখম হয়। পরে ওই শিক্ষককে সহকারী শিক্ষক এবং স্থানীয়রা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করান।

মো. হান্নান খান জানান, ওই শিক্ষকের সঙ্গে একত্রে মসজিদে জুমার নামাজ পড়েন। তখন প্রধান শিক্ষকের একটি কথায় মুসল্লীদের মাঝে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। নামাজের পরে এ বিষয় নিয়ে লাইব্রেরিতে গিয়ে কথা বলতে গেলে প্রধান শিক্ষক উত্তেজিত হয়ে লাইব্রেরি কক্ষ আটকে একটি চেয়ার নিয়ে তাকে আঘাত করতে যায়। তখন আর একটি চেয়ার নিয়ে ফিরাতে গেলে কিছুটা আঘাতপ্রাপ্ত হন। নিজের কারণে এ পরিস্থিতি হয়েছে বলেও দাবি করেন স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো. হান্নান খান।

এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বাংলাদেশ সরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির কলাপাড়া উপজেলা শাখার সভাপতি মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও সদস্যের মধ্যে এর আগে এমন ঘটনা কখনও ঘটেনি। আমরা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছি। তিনি আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।


error: Content is protected !!