সাতক্ষীরায় জেলা প্রশাসনের আয়োজনে হিফজুল কুরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতা উদ্বোধন

কর্তৃক Ayub hossaen Rana
০ কমেন্ট 108 ভিউস

নিজস্ব প্রতিবেদক:

সাতক্ষীরায় হিফজুল কুরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতা উদ্বোধন করা হয়েছে। সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও মাসজিদের কুবার ব্যবস্থপনায় গতকাল সকাল ১০টায় শহরের মেহেদীবাগস্থ মাসজিদে কুবা কমপ্লেক্সে দৈনিক দৃষ্টিপাত সম্পাদক ও মাসজিদে কুবার সভাপতি জিএম নূর ইসলামের সভাপতিত্বে অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন অতি: জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শেখ মইনুল ইসলাম মঈন। তিনি কুরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন।

এসময় তিনি বলেন, মহান আল্লাহ পবিত্র কুরআন মাহে রমজান মাসে নাজিল করেছেন। ইসলামের দৃষ্টিতে কুরআনের অবস্থান সর্ব উচ্চ স্থানে। মানব জাতির হেদায়েতের জন্য কুরআন নাজিল হয়েছে। পবিত্র কুরআনের হাফেজদের রাষ্ট্রীয় ও সামাজিকভাবে সম্মানিত ব্যক্তি হিসাবে আমাদের কাছে পরিচিত। তিনি আরো বলেন, মাহে রমজান মাসে সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক কুরআন প্রতিযোগিতা আয়োজন করায় প্রশংসিত হয়েছে। বাংলাদেশের হাফেজরা বিশ্বে বিভিন্ন দেশে গিয়ে প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহন করে বিজয়ী হয়ে বাংলাদেশকে সম্মানিত করেছে। সাতক্ষীরার হাফেজদের জাতীয় পর্যায়ে তুলে ধরার জন্য জেলা প্রশাসনের এমন মহতি উদ্যোগ গ্রহন করেছে। এই প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অংশ গ্রহন করতে হবে। হাফেজরা প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়ে নতুন করে সাতক্ষীরাকে বিশ্ব বাসীর কাছে পরিচিত করবে। তিনি মাসজিদে কুবার এমন উদ্যোগ কে সহায়তা করায় কমিটির নেতৃবৃন্দকে ধন্যবাদ জানান।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন মাসজিদে কুবার উপদেষ্টা ও জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত ক্রীড়া সংগঠক তৈয়েব হাসান বাবু, বক্তব্য রাখেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ডিডি মুহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ, মাসজিদে কুবার সাধারন সম্পাদক আব্দুর রশিদ। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার মো: আব্দুল্লাহ আল আমিন, জেলা তথ্য অফিসার মো: জাহারুল ইসলাম, সমাজসেবক আলহাজ্ব আব্দুল মান্নান, জেলা সাহিত্য পরিষদের সভাপতি মো: শহিদুর রহমান, মাসজিদের মুয়াজ্জিন আব্দুস সবুর, কোষাধ্যক্ষ আব্দুল করিম, গোলাম হোসেন, শফিকুল মোল্লা, গোলাম রহমান। বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন হাফেজ কারী শেখ ফিরোজ হাসান, হাফেজ আব্দুল আজিজ, মাও: খায়রুল বাসার। মাসজিদে কুবায় পবিত্র কুরআন প্রতিযোগিতাকে কেন্দ্র করে বেশ আগে থেকে মাসজিদে কুবায় আসতে থাকে হাফেজগন। নির্ধারিত সময়ের পূর্বে মাসজিদে তরুন হাফেজদের উপস্থিতিতে নয়নাভিরাম পরিবেশ সৃষ্টি হয়। নির্ধারিত সময়ে প্রতিযোগিতায় একে একে পবিত্র কুরআনের সুমধুর বাণী শোনাতে থাকে হাফেজরা।

এসময় জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত শতাধিক হাফেজ প্রতিযোগিতায় অংশ গ্রহন করেন। বয়স ভিত্তিক কুরআন প্রতিযোগিতায় ১৭ বছর বয়সী হাফেজ গন অংশ গ্রহন করেন। এখানে প্রথম স্থান অধিকারীকে ৫০ হাজার টাকা, দ্বিতীয় স্থান অধিকারীকে ৩০ হাজার টাকা এবং তৃতীয় স্থান অধিকারীকে ২০ হাজার টাকা সহ ১০ জন বিজয়ীকে পুরস্কার প্রদান করা হবে।

এর পূর্বে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয় দোয়া পরিচালনা করেন সুলতানপুর বড় বাজার জামে মসজিদের পেশ ইমাম আলহাজ্ব মাও: আব্দুল খালেক। সমগ্র অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সাধারন সম্পাদক শেখ মোশফিকুর রহমান মিল্টন। উল্লেখ্য ৯৫ জন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহন কারীর মধ্য হতে বাছাই করে ২৫ জন প্রতিযোগীকে ইয়েস কার্ড প্রদান করা হয়।



রিলেটেড পোস্ট

মতামত দিন

error: Content is protected !!