সাধারন মানুষের সাথে জুলুম ও হয়রানি করলে ছাড় নেই- ডিআইজি মঈনুল হক

কর্তৃক Ayub hossaen Rana
০ কমেন্ট 105 ভিউস

নিজস্ব প্রতিবেদক:

খুলনা রেঞ্জ পুলিশের ডিআইজি মঈনুল হক বিপিএম(বার) পিপিএম বলেছেন, যারা সাধারন মানুষের সাথে জুলুম করবে অন্যায় ভাবে হয়রানি করবে তাদের কোন ছাড় নেই। সে যেই হোক। আইনের দৃষ্টিতে সবাই সমান। তিনি বলেন, দেশে আর কখনও সন্ত্রাসী, জঙ্গিবাদের উত্থান ঘটবে না। কেউ অপরাধ করে পার পাবে না। দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। ডিজিটাল বাংলাদেশের সুফল সবাই ঘরে বসে পাচ্ছে।
তিনি বলেন, ধর্মান্ধ কোন উগ্র মৌলবাদী গোষ্ঠির অপতৎপরতাসহ জালাও, পোড়াও আর কোথাও হতে দেয়া হবে না। এজন্য পুলিশের পাশাপাশি কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির কার্যক্রমকে আরও কার্যকর করতে হবে। খুলনা রেঞ্জ পুলিশের ডিআইজি মঈনুল হক সাতক্ষীরা জেলা পুলিশিং কমিটির সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
বুধবার বিকেলে পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার কাজী মনিরুজ্জামান।
পুলিশ সুপার কাজী মনিরুজ্জামান তার বক্তব্যে বলেন, আর কখনও সাতক্ষীরায় ধর্মান্ধ উগ্রমৌলবাদি গোষ্টির জালাও পোড়াও গাছ কাটা মানুষ হত্যার ঘটনা ঘটবে না। পুলিশ কঠোর হাতে অপরাধীদের দমন করবে। ২০১৩-১৪ সালে সাতক্ষীরায় সন্ত্রাসীদের হাতে নিহতদের পরিবারের সুরক্ষাসহ অসহায় এসব পরিবারের পাশে দাড়ানোর কথা পুন:ব্যক্ত করেন পুলিশ সুপার।
তিনি বলেন, মাদক নিমূলে পুলিশ সার্বক্ষনিক ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। গত দুই মাসে সাতক্ষীরায় ১৩৯ জন মাদক সেবী ও ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন পুলিশ সুপার।
এসময় বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা পুলিশ ট্রেনিং সেন্টার এর পুলিশ সুপার মো: বিলায়েত হোসেন, জেলা পুলিশিং কমিটির সভাপতি ডা. আবুল কালাম বাবলা, সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারন সম্পাদক ও পাটকেলঘাটা থানা পুলিশিং কমিটির সভাপতি মো: মোজাফ্ফর রহমান, পুলিশিং কমিটির সদস্য ও জেলা মহিলা লীগের সাধারন সম্পাদক জোসনা আরা, পুলিশিং কমিটির সদস্য গৌর চন্দ্র দত্ত, শ্যামনগর থানা পুলিশিং কমিটির সভাপতি এসএম আফজালুর রহমান, পাটকেলঘাটা লোকনাথ নার্সিং হোমের পরিচালক পুলক কুমার পাল প্রমুখ।
এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সজিব খানসহ জেলা পুলিশের বিভিন্ন সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপারবৃন্দ বিভিন্ন থানার অফিসার ইনচার্জ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

রিলেটেড পোস্ট

মতামত দিন

error: Content is protected !!