আতঙ্কে কর্মকর্তা কর্মচারীরা : ভাঙ্গনের ঝুকিতে বন বিভাগের সাতক্ষীরা রেঞ্জ কার্যালয় ভবন

কর্তৃক Ahadur Rahman Jony
০ কমেন্ট 12 ভিউস

মারুফ বিল্লাহ রুবেল: বন বিভাগের জেলা কার্যালয় সাতক্ষীরার রেঞ্জ কার্যালয়ের দ্বিতল ভবনটি নদী ভাঙ্গনে মারাত্মকভাবে ঝুকিপুর্ন হয়ে দাড়িয়েছে। খোলপেটুয়া নদীর স্রোতের পানি হতে মাত্র ৭/৮ হাত/ ফুট দুরত্বে অবস্থান করছে ভবনটি। ১হাজার ৩শ’ বর্গফুট জমির উপর সাতক্ষীরা রেঞ্জ কার্যালয় ও বুড়িগোয়ালিনী স্টেশন কার্যালয় ভবন অবস্থিত। বর্তমান সময়ে রেঞ্জ কার্যালয়ের দ্বিতল ভবনটির ছাদের নিচে অনেকগুলো অংশে ফাটল ধরেছে। কার্যালয়ের প্রধান ফটকের বাম দিকে ভবন ধ্বসে পড়ার উপক্রম হয়েছে।রেঞ্জ কার্যালয় ভবনটি ২০০১ সালে নির্মান হয় কিন্তু এই ১৮টি বছরে সংস্কারের তেমন কোন ছোঁয়া লাগেনি। সাতক্ষীরা রেঞ্জ কার্যালয়টি লবনাক্তার কারনেও ধ্বসে পড়ায় কার্যালয়ের উদ্দ্যোগে রং করা হয় গত বছর। লবনাক্তার কাছে হেরে গিয়ে ভবনটি এখন, নদী ভাঙ্গন আর লবনাক্তার ভয়াবাহ ত্রাসে টলমল করছে, রেঞ্জ কার্যালয়ের কর্মরত কর্তৃপক্ষ হতাশায় কার্যক্রম করে চলছে এমন দৃশ্য দেখা গেছে। এ বিষয়ে সাতক্ষীরা রেঞ্জ কর্মকর্তা এ সি এফ রফিক আহমেদের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, নদী ভাঙ্গনের কারনে কার্যালয়টি ঝুকিপুর্ন অবস্থায়রয়েছে। ইতোপূর্বে ভাঙ্গনরোধে নিজ উদ্দ্যোগে আমরা বেশ কয়েক শ’ বালু ভর্তি বস্তা ফেলি কিন্তু মাঝে মাঝে স্রোতের বেগ স্বাভাবিকের চেয়ে বেশী হওয়ায় উক্ত বস্তা নদী গর্ভে চলে যায়। বর্তমানে উক্ত কার্যালয়/ভবনটিবেশ ঝুকির্পর্ণ অবস্খায় রয়েছে। স্বল্প সময়ের মধ্যেসাতক্ষীরা রেঞ্জ কার্যালয় দ্বিতল ভবনটি সংস্কার কাজ করা দরকার। যদি সংস্কার বা মেরামতের সুব্যবস্থা না করা হয় তাহলে খুব শ্রীঘ্রই নদী গর্ভে ধ্বসে পড়তে পারে। তাই সঠিক সমাধানের জন্য বন বিভাগ সহ সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষে হস্তক্ষেপ /সুদৃষ্টি কামনা করেছেন সংশ্লিষ্ঠরা।

রিলেটেড পোস্ট

মতামত দিন

error: Content is protected !!