কলারোয়ায় বাল্য বিয়ে : বরকে ১৫ দিন কারাদন্ড, এফিডেভিটকারী আইনজীবী হাসানাত মনিরকে জরিমানা

কর্তৃক Ahadur Rahman Jony
০ কমেন্ট 13 ভিউস

কামরুল হাসান, কলারোয়াঃ  কলারোয়ায় নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে বাল্যবিবাহ দেয়ার অপরাধে এক বরকে ১৫দিনে বিনাশ্রম কারাদন্ড ও বরেব পিতাকে ৫হাজার টাকা জরিমানা এবং এই অপরাধের সহযোগিতা করায় আইনজীবীকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। ঘটনাটি ঘটেছে-কলারোয়া পৌর সদরের গোপিনাথপুর গ্রামে। শুক্রবার (২৩আগষ্ট) বেলা ৩টার দিকে কলারোয়া পৌরসভাধীন গোপিনাথপুর গ্রামে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আক্তার হোসেন। এসময় অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েকে বিবাহের অপরাধে ওই গ্রামের বর আমির হামজা (২০) কে ১৫দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও তার পিতা হযরত আলীকে ৫হাজার টাকা জরিমানা সহ এভিডেভিট করে মেয়ের বয়স বাড়িয়ে বাল্যবিবাহে সহযোগিতা করার অপরাধে সাতক্ষীরা আদালতের আইনজীবী হাসানাত মনিরকে ২০হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়- গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোহা. রাজিব হোসেন জানতে পারেন যে-বৃহষ্পতিবার দিবাগত রাতে কলারোয়া পৌরসভার গোপিনাথপুর গ্রামের হযরত আলীর ছেলে আমির হামজার সাথে একই গ্রামের ১৬বছর বয়সী এক কন্যার বিয়ের ঘটনা ঘটেছে। মেয়েটি পার্শ্ববর্তী মুরারীকাটি ইউনাইটেড হাইস্কুলের ৯ম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত। এ খবরে শুক্রবার দুপুরে থানা পুলিশের এসআই মাসুদ, এএসআই মফিজুর রহমান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা নিশ্চিত হলে তাৎক্ষনিক ভাবে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আক্তার হোসেন সেখানে উপস্থিত হয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কলারোয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রাজিব হোসেন জানান- ‘নিকাহনামার মিথ্যা কাগজপত্র উপস্থাপন করে কাজী ও মৌলভীর স্বাক্ষর ছাড়াই সেই ফরমে পাত্র-পাত্রীর স্বাক্ষর নিয়ে বিবাহ কার্য সম্পন্ন করায় আইনজীবী হাসানাত মনিরকে ও বরের পিতাকে জরিমানা করেন ভ্রাম্যণ আদালত। কারাদন্ডপ্রাপ্ত বরকে শুক্রবার বিকেলে সাতক্ষীরা জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। তিনি আরো জানান- ‘বুধবার কলারোয়ায় অনুষ্ঠিত ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠানে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান পিপিএম (বার) বাল্যবিবাহের বিষয়ে কঠোর হুশিয়ারী উচ্চারণ করে জানিয়েছিলেন বয়স এভিডেভিটসহ বাল্যবিবাহে সহযোগিতা করলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। বিয়ের ক্ষেত্রে বয়স এভিডেভিট গ্রহণযোগ্য নয়। তার পরেও কিভাবে একজন সচেতন মানুষ হয়ে বাল্যবিবাহের সহযোগিতা করেন।

রিলেটেড পোস্ট

মতামত দিন

error: Content is protected !!