কলারোয়ায় ৬ বছরের শিশু ধর্ষন : থানায় মামলা

কর্তৃক Ahadur Rahman Jony
০ কমেন্ট 17 ভিউস
কামরুল হাসান, কলারোয়াঃ  কলারোয়ার কেরালকাতা ইউনিয়নের উত্তর বহুড়া গ্রামে ৬ বছরের এক শিশু ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে।
ধর্ষিতা শিশুটি বর্তমানে খুলনা মেডিকেল ভর্তি আছে। ভিকটিমের দাদি   বলেন,  প্রতিদিনের ন্যায় দুপুর ২টার দিকে আমার পুতনি খাটের উপরে বসে খেলা করছিল।  প্রতিবেশী ইব্রাহিমের ছেলে ভ্যান চালক ইয়ারব হোসেন (২৮) একই ঘরের মেঝেতে বসে টেলিভিশন দেখছিল। ঐ সময় মেয়ের বাবা  ও মেয়ের মা  দুজনই পাশের রান্না ঘরে ছিল। হঠাৎ মেয়ের আত্মচিৎকারে বাবা মা ঘটনাস্থলে এসেই এক বিভৎস্য  ঘটনা দেখতে পান। ঐ মুহুর্তে প্রতিবেশী ধর্ষক ইয়ারবের স্বীকারোক্তি করায়ে কোন কিছু না বলে মেয়েকে নিয়ে ছোটাছুটির একপর্যায়ে পার্শ্ববর্তী শার্শার বাগআঁচড়া বাজারে প্রাথমিক চিকিৎসা  নেয়ার পর ডাক্তার শিশুটির অবস্থা  খারাপ দেখে অন্যত্র ভাল ডাক্তারের নিকট নেয়ার পরামর্শ দেন।  এরপর সাতক্ষীরায় আব্দুর রহমান ডাক্তারের নিকট নিয়ে গেলে রুগি দেখে  তিনি খুলনা মেডিকেলে নেওয়ার পরামর্শ দেন। ঐদিন ২৪ আগষ্ট রাত ২ টার দিকে তাকে  খুলনা  আদ্- দ্বীন হাসপাতালে দেখিয়ে মেডিকেল চেকআপের পর খুলনা মেডিকেলে ভর্তি করেন।
ঘটনাটি ঘটেছে গত ২৪ আগস্ট শনিবার।  মামলার বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ভিকটিমের দাদী বলেন, আমার ছেলে এবং বৌমা মেয়ের চিকিৎসার কাজে ব্যস্ত থাকার কারনে থানায় মামলা করতে দেরী হয়েছে। ২৯ আগস্ট মেয়ের বাবা বাদী হয়ে কলারোয়া থানায় ধর্ষক ইয়ারবের নামে মামলা করেছেন। মেয়ের দাদী আরো জানান, বর্তমানে আমার পুতনীর অবস্হা একটু ভাল। আমরা ধর্ষক ইয়ারবের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।
 এ বিষয়ে কলারোয়া থানার  অফিসার ইনচার্জ  শেখ মুনীর-উল-গীয়াস  জানান ধর্ষিতার পিতা বাদী হয়ে ২৯ আগস্ট একটি মামলা নং-৩২ (নারী ও শিশু নির্যাতন আইন ২০০০, সংশোধিত ২০০৩ এর ৯(১) দায়ের করেছেন। উত্তর বহুড়া গ্রামের ইব্রাহিম হোসেনের ছেলে অভিযুক্ত ইয়ারব পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে ।

রিলেটেড পোস্ট

মতামত দিন

error: Content is protected !!