কালিগঞ্জে মৎস্য ঘের জবর দখল করে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ঘরে আগুন

0 ৯১

নিজস্ব প্রতিবেদক: কালিগঞ্জ উপজেলার ভাড়াশিমলার কামদেবপুরে রমজান আলীর মৎস্য ঘের জোর-পূর্বক দখল করে নেওয়ার পর প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে মৎস্য ঘেরের বাসায় আগুন দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার সংবাদ পেয়ে কালিগঞ্জ থানার এসআই সঞ্জীব কুমার সমদ্দার ঘটনাস্থাল পরিদর্শন করেছেন। এঘটনায় উপজেলার কামদেবপুর গ্রামের মৃত নকুল চন্দ্র সাহার পুত্র লক্ষিপদ সাহা বাদী হয়ে ভাড়াশিমলা গ্রামের হাজি আব্দুল করিম এর পুত্র শেখ মঞ্জুরুল ইসলাম, মৃত মোজাম্মেল হকের পুত্র জাকির হোসেন, শেখ মঞ্জুরুল ইসলামের পুত্র ওয়াসিমকে বিবাদী করে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, ভাড়াশিমলা গ্রামের মৃত শেখ মতলেব আলীর পুত্র শেখ রমজান আলী প্রায় ২৫/৩০ বছর ভোগ দখলীয় মৎস্য ঘেরটি কামদেবপুর গ্রামের মৃত নকুল চন্দ্র সাহার পুত্র লক্ষিপদ সাহা হারি নিয়ে মৎস্য চাষ করে আসছে।  গত ৩১ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখে শেখ মঞ্জুরুল ইসলামের নেতৃত্বে ভাড়াটিয়া লাঠিয়াল বাহিনী নিয়ে মৎস্য ঘেরটি জবর দখল করে নেয়। কালিগঞ্জ থানার এসআই সঞ্জীব সমদ্দার জানান, ওসির স্যারের নির্দেশে ভাড়াশিমলার কামদেবপুরে মৎস্য ঘেরে ঘর পোড়ানোর স্থানে যাই। ঘর পোড়ানোর বিষয়ে উভয় পক্ষের পাল্টা-পাল্টি অভিযোগ পেয়েছি। এবিষয়ে ঘের মালিক রমজান আলী জানায়, আমার জমিতে ভাড়াশিমলার শেখ মঞ্জুরুল ইসলাম সহ তার ভাড়াটিয়া দলবল নিয়ে মৎস্য ঘেরটি জবর দখল করে রেখেছে। মৎস্য ঘেরের বাসায় আগুন দেওয়ার বিষয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি। প্রতিপক্ষরা আমাকে জব্দ করতে মৎস্য ঘেরে আগুন লাগিয়ে আমি এর বিচার চাই।