কালিগঞ্জ ভূমি অফিসে ঘুষের টাকা সহ দালাল আটক, ভ্রাম্যমাণ আদালতে সাজা

0 ১৪৩

হাফিজুর রহমান/হাবিবুল্লাহ বাহার: নাম-ই জারি করার নামে অফিসে দেওয়ার সময় ২৩ হাজার ঘুষের টাকাসহ জমিন কারিকর (৪০) নামে এক দালালকে পুলিশ হাতেনাতে আটক করলেও ঘুষখোর উপজেলা ভূমি অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা রয়ে গেছে ধরাছোঁয়ার বাইরে। খবর পেয়ে উপজেলা ভূমি অফিসে এসে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা এবং সহকারী কমিশনার ভূমি খন্দকার রবিউল ইসলাম আটককৃত জমিন কারিগরকে ভ্রাম্যমান আদালতে দোষ স্বীকার করায় ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন। সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলা ভূমি অফিসে ১৩ অক্টোবর বুধবার বেলা ১২টার সময় এ ঘটনা ঘটে। গ্রেপ্তারকৃত জমিন কারিকর উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের উত্তর শ্রীপুর গ্রামের মৃত জামাত আলীর পুত্র।  ঘুষ লেনদেন হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কালীগঞ্জ থানার পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত মিজানুর রহমান ও উপ পরিদর্শক মনির হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স এবং সাংবাদিকদের সাথে নিয়ে অভিযান চালিয়ে ঘুষের নগদ ২৩ হাজার টাকা ১২টি নাম ই জারি ফাইল সহ তাকে হাতেনাতে আটক করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কে জানানো হয়। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাথে সাথে ভূমি অফিসে এসে ভ্রাম্যমাণ আদালতে দোষ স্বীকার করায় তাকে এক বছর বিনাশ্রম কারাদÐ প্রদান করেন। গ্রেপ্তারকৃত জমিন কারিগর সাংবাদিকদের জানায় উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে নাম জারি বা মিউটেশন করার জন্য ১২ ফাইল প্রধান অফিস সহকারী নজরুল ইসলাম, সায়রাত সহকারী সরোয়ার, আব্দুর রহমান এবং প্রসেস সার্ভেয়ার শাহজাহানকে টাকা দেওয়ার জন্য উপজেলা ভূমি অফিস ঢুকলে তাকে আটক করা হয়। কালীগঞ্জ উপজেলা ভূমি অফিসে মিউটেশন ডিসিআর, নিতে গেলে টাকা ছাড়া কাজ হয়না। দালালদের মাধ্যমে উপজেলা ভূমি অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বছরের পর বছর ৯ থেকে ১০ হাজার টাকা করে হাতিয়ে নিয়ে আসছে। বিষয়টি ওপেন সিক্রেট হলেও উপজেলা ভূমি কর্মকর্তারা দেখেও না দেখার ভান করে থাকে। সরাসরি কোনো ভূমি কর্মকর্তার নিকট কোন কাজ নিয়ে গেলে তাকে নানা অজুহাতে ঝামেলা পোহাতে হয়। তাই ঝামেলা থেকে বাঁচতে বাধ্য হয়ে দালালদের মাধ্যমে চুক্তিভিত্তিক টাকা দিয়ে কাজ করে নিতে হয়।  বিষয়টি জেলা প্রশাসক মহোদয়ের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছে উপজেলা বাসী।


error: Content is protected !!