চট্টগ্রামের চন্দনাইশ থানায় আসামি ধরে ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ

0 ১৩০
চট্টগ্রামের চন্দনাইশ থানার ওসি নাসির উদ্দিন সরকারের বিরুদ্ধে আসামি ধরে ছেড়ে দেয়ার অভিযোগ করেছে আব্দুল কাইয়ুম নামের এক ব্যক্তি।
জানা গেছে, অভিযোগ সূত্রে জানায় গত ২১ সেপ্টম্বার সেকান্দর আলমসহ আরও স্থানীয় নয় জন ভূমিদস্যু মিলে তার জাফরাবাদস্থ জায়গাটি দখল করার চেষ্টা করলে আবদুল কাইয়ুম চট্টগ্রাম জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ফৌজদারী মামলা দায়ের করেন এবং তার প্রেক্ষিতে উক্ত জায়গায় ১৪৫ ধারা জারি করা হয়। কিন্তু সেই ১৪৫ ধারাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে এলাকার ভূমি দস্যুরা আবদুল কাইয়ুমের  জায়গা গত ১ অক্টোবর দখলপূর্বক ২৫টি  সেগুন এবং ছোট ছোট বিভিন্ন ফল ফলাদির গাছ কেটে সেখানে রাতারাতি ঘর তৈরী করে। চন্দনাইশ থানায় অভিযোগ করলে সেখানে কোন কাজের বদলে তাকে হয়রানির শিকার হতে মর্মে জানিয়েছেন আবদুল কাইয়ুম। মামলার মূল হোতা সেকান্দরকে গত ৬ অক্টোবর সকাল ১২টায় গ্রেফতার করা হলেও তার দুই ঘন্টার মধ্যে তাকে ওসি নাসির ছেড়ে দেন।
এই বিষয়ে আবদুল কাইয়ুম জানান, সেকান্দরা মিলে আমার জায়গাটি অনেকদিন যাবৎ দখল করার চেষ্টা করে আসছে। আমি তার জন্য আদালত হতে ১৪৫ ধারার জারি করি। কিন্তু আমার ১৪৫ ধারার বদলে আমি কোন প্রকার আইনি সহয়তা পাইনি। আমি গত ৬ অক্টোবর  ওসি সাহেবের কাছে গিয়ে আমার জায়গা দখল হওয়ার ব্যাপারে উনাকে জানালে তিনি আমার সাথে অশালিন ব্যবহার করেন। আমাকে বিভিন্ন রকম হুমকি দেওয়াসহ মূল আসামী সেকান্দরকে দুই ঘন্টার মধ্যে ছেড়ে দেন। আমি তার কাছে আইনি নিরাপত্ত চাইলে তিনি আমাকে হাজতে ডুকিয়ে নিরাপত্তা দেওয়া কথাও জানান।উক্ত ভূমি দস্যুদের বিরুদ্ধে ওসি নাসির তার অভিযোগ বা মামলা নিবেনা মর্মে আবদুল কাইয়ুম আমাদের জানান। অভিযোগের বিষয়ে জানার জন্য চন্দনাইশ থানার ওসির সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলেও  ফোনে পাওয়া যায়নি।


error: Content is protected !!