পাইকগাছায় মৎস্য ঘেরটি লুটপাটপূর্বক দখল চেষ্টার অভিযোগ

0 ৯৪

পাইকগাছা প্রতিবেদক: জানমাল রক্ষার জন্য আদালতে মামলা করেও শেষ রক্ষা হলো না মাকসুদ রহমানের। অবশেষে তার শেষ সম্বল ছোট্ট একটি মৎস্য ঘের লুটপাটপূর্বক দখলচেষ্টা করেছে উপজেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি সমীরণ কুমার সাধু। এ ঘটনায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করে মাকসুদুর রহমান পাইকগাছা প্রেসক্লাবে এক জনাকীর্ণ সাংবাদিক সম্মেলন করেছে।

উপজেলার হিতামপুর গ্রামের আব্দুল হামিদ মোড়লের পুত্র মাকসুদুর রহমান রবিবার দুপুরে পাইকগাছা প্রেসক্লাবে এক জনাকীর্ণ সাংবাদিক সম্মেলনে তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, উপজেলার হিতামপুর মৌজায় এস,এ ৩৭৮ খতিয়ানে ১৭৭ দাগে ১২ বিঘা জমিতে ক্রয় ও ইজারামূলে দীর্ঘদিন মৎস্য ঘের করে আসছে। লীজ ঘেরটি উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সমীরণ সাধুর ইট ভাটার পাশে হওয়ায় আমার এই লীজ ঘেরে সে কুনজর দেয়। যে কারণে সমীরণ সাধু বিভিন্ন সময় হুমকি-ধামকি দিতে থাকে। সে কারণে জানমাল রক্ষার জন্য মাকসুদুর রহমানের পিতা আব্দুল হামিদ পাইকগাছা থানায় জিডি, উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে মামলা করে। এতে করে সমীরণ সাধু ক্ষিপ্ত হয়ে শনিবার মাকসুদুর রহমানের মৎস্য লীজ ঘেরটিতে লুটপাট পূর্বক দখল চেষ্টা করে। এ ঘটনায় সে পাইকগাছা থানায় এক লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। অভিযুক্ত সমীরণ সাধু মোবাইলটি বন্ধ থাকায় তার মন্তব্য পাওয়া যায়নি। পাইকগাছার ওসি (তদন্ত) স্বপন রায় বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে। সাংবাদিক সম্মেলনে মাকসুদুর রহমান প্রশাসন সহ সর্বস্তরের সহযোগিতা কামনা করেছেন।


error: Content is protected !!