বন্ধুকে বেঁধে তরুণীকে গণধর্ষণ, ছবি তুলে ব্ল্যাকমেইল!

0 ২৬৮

সাতনদী অনলাইন ডেস্ক: ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশেও এবার নির্ভয়া কাণ্ডের ছায়া। বন্ধুকে বেঁধে রেখে তার সামনেই গণধর্ষণ করা হলো ২১ বছরের এক তরুণীকে। নির্যাতিতার নগ্নছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ফাঁস করে দেওয়ার হুমকি দিয়ে তিন অভিযুক্তের মধ্যে একজন ওই তরুণীকে ব্ল্যাকমেইল করার চেষ্টা করছিল বলেও অভিযোগ উঠেছে।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, অন্ধ্রপ্রদেশের পূর্ব গোদাবরী জেলার ওই ঘটনায় অভিযুক্তরা এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে। তবে দ্রুত তাদের ধরতে বিশেষ তদন্তকারী দল গড়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন অমলাপুরমের ডিএসপি ওয়াই এম রেড্ডি।

ঘটনাটি প্রায় দুই সপ্তাহ আগের বলে ওই সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে পুলিশ। পুলিশের বরাত দিয়ে পত্রিকাটি জানায়, বন্ধুর সঙ্গে কোমারাগিরিপটনাম কাদাদারির কাছে একটি সমুদ্রসৈকতে বেড়াতে গিয়েছিলেন ওই তরুণী। সেখানে তাদের ঘিরে ধরে ওই তিন অভিযুক্ত। তরুণীটিকে তাদের সঙ্গে যাওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকে। তরুণী এবং তার বন্ধু প্রতিবাদ জানালে দুজনের ওপরেই চড়াও হয় অভিযুক্তরা। এর পর বন্ধুকে বেঁধে তার চোখের সামনেই তরুণীটিকে গণধর্ষণ করে ওই তিনজন। নগ্ন অবস্থায় তরুণীটির একাধিক ছবি ক্যামেরাবন্দি করে রাখে অভিযুক্তরা।

‘সামাজিক হেনস্তার’ কথা চিন্তা করে এত দিন বিষয়টি নিয়ে মুখ খোলেননি ওই তরুণী। তবে সম্প্রতি তিন অভিযুক্তের মধ্যে কোনও একজন তরুণীর ফোন নম্বর সংগ্রহ করে তাকে আবারও কুপ্রস্তাব দিতে থাকে বলে অভিযোগ করেন তিনি। যা না মানলে সে দিনের তোলা আপত্তিকর ছবিগুলো বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিতে থাকে সে। এই হেনস্তা সহ্য করতে না পেরে অবশেষে পরিবারের কাছে ঘটনার কথা খুলে বলেন ওই তরুণী। এরপরই পুলিশের দ্বারস্থ হয় তার পরিবার।

তদন্তে নেমে ওই তিন অজ্ঞাতপরিচয় অভিযুক্তের বিরুদ্ধে একাধিক ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ। ইতোমধ্যেই তাদের ধরতে বিশেষ তদন্তকারী দল গঠিত হয়েছে। পাশাপাশি নির্যাতিতাকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্যও পাঠানো হয়। তাড়াতাড়ি অভিযুক্তরা পুলিশের জালে ধরা পড়বে বলে জানান অমলাপুরমের ডিএসপি ওয়াই মাধব রেড্ডি।