ভোমরা সিএন্ডএফ এজেন্টস্ এসোসিয়েশন ভবনে বঙ্গবন্ধু কর্নার উদ্বোধন

দলমত নির্বিশেষে বঙ্গবন্ধু জাতীয় সম্পদ- নজরুল ইসলাম

0 ৯৩

আহাদুর রহমান (জনি): বঙ্গবন্ধু শুধু আওয়ামী লীগ নয় পুরো জাতির নেতা। তিনি জাতীয় সম্পদ। ভোমরা সিএন্ডএফ এজেন্টস্ এসোসিয়েশনের এ মহতি উদ্যোগকে আমি সাধুবাদ জানাই। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় ভোমরা সিএন্ডএফ এজেন্টস্ এসোসিয়েশন ভবনে বঙ্গবন্ধু কর্ণার উদ্বোধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ নজরুল ইসলাম কথাগুলো বলেন।
জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, এতদিন সিএন্ডএফ এজেন্টস্ এসোসিয়েশন ভবনে বঙ্গবন্ধু কর্নার কেন করা হয়নি এ দায় এই কমিটির উপর চাপানো ঠিক হবে না। ভোমরার উন্নয়নে জেলা পরিষদের সম্ভাব্য সকল সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। ইতোমধ্যেই ভোমরায় জেলা পরিষদের উদ্যোগে সুপেয় পানির ব্যবস্থা করা হচ্ছে। সেই সাথে গনশৌচাগার নির্মানও হবে। ভোমরা স্থল বন্দরের যে কোন প্রয়োজনে জেলা পরিষদ সার্বিক সহযোগীতা করবে।
জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক শেখ হারুন অর রশীদ তার বক্তব্যে বলেন, বঙ্গবন্ধুর চেতনা বর্তমান আহবায়ক কমিটি ধারন করে। আগের কমিটিগুলো এ বিষয়ে তাদের দায়িত্ব এড়িয়ে গেছে। বর্তমান কমিটি এভাবে কাজ করে ভোমরা স্থলবন্দরকে এগিয়ে নিয়ে যাবে এই আশা ব্যক্ত করি।
জেলা পরিষদ সদস্য আল ফেরদাউস আলফা তার বক্তব্যে বলেন, দীর্ঘদিন পর হলেও বঙ্গবন্ধু কর্নার এই ভবনে উদ্বোধন হলো। আরও আগে হওয়ার দরকার ছিল। ভোমরা সিএন্ডএফ এসোসিয়েশনের দাবীকৃত গণশৌচাগার ও সুপেয় পানির ব্যবস্থা করা হয়েছে। ভোমরা স্থলবন্দরের আরও সমৃদ্ধির জন্য জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে আরও সহযোগীতা দেওয়া হবে।
রামকৃষ্ণ চক্রবর্তী তার বক্তব্যে বলেন, স্বাধীনতার ৫০বছর পর ভোমরায় বঙ্গবন্ধু কর্নার উদ্বোধন হয়েছে। বঙ্গবন্ধুকে সকলে হৃদয়ে ধারন করলে আমাদের উদ্যোগ সফল হবে।
সমাপনী বক্তব্যে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সভাপতি ও ভোমরা সিএন্ডএফ এজেন্টস্ এসোসিয়েশনের আহবায়ক এজাজ আহম্মেদ স্বপন বলেন, ভোমরা বন্দরকে আমাদের বন্দর ভাবতে হবে। এর উন্নতি মানে সাতক্ষীরা জেলা তথা আপনার আমার উন্নতি। এর সার্বিক বিষয়ে সকলে স্বতঃস্ফুর্ত ভাবে অংশগ্রহণ করা আহবান জানাই।
আহবায়ক কমিটির সদস্য মিজানুর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভোমরা স্থল বন্দরের (ট্রাফিক) উপ-পরিচালক মনিরুল ইসলাম, ভোমরা শুল্ক স্টেশনে সহকারি কমিশনার আমির মানুন। আরও উপস্থিত ছিলেন, ভোমরা স্থল বন্দরের এডি মাহমুদুল হাসান, এডি কোয়ারেন্টাইন আরফান আলী, ভোমরা ফাঁড়ি ইনচার্জ জাহাঙ্গীর হোসেন, সিএন্ডএফ সদস্য শাহিনুর রহমান, রোখসানা পারভীন, বেনাপোল সিএন্ডএফ সদস্য সাথী, বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীবৃন্দ।


error: Content is protected !!