শ্যামনগরে সড়ক জনপদের জায়গায় অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ

কর্তৃক Ahadur Rahman Jony
০ কমেন্ট 16 ভিউস

নিজস্ব প্রতিনিধি:শ্যামনগর সদরে প্রশাসনের নাকের ডগায় সড়ক ও জনপদের জায়গা দখল করে পাকা স্থায়ী ভবন নির্মাণ করা হচ্ছে। সরেজমিনে দেখা যায় সড়ক ও জনপথ সংলগ্নমাইওয়ান শো রুমের সামনে সড়ক ও জনপদের জায়গা দখল করে উপজেলার পাতড়াখোলা গ্রামের মৃত মতিয়ার রহমানের ছেলে রুহুল আমিন পাকা স্থাপনা নির্মাণ করছেন। সড়ক ও জনপদের জায়গায়স্থায়ী ইমারাত বা কোন প্রকার স্থায়ী স্থাপনা নির্মাণের বিধান না থাকলেও রুহুল আমিন প্রশাসনের চোখে ধুলা দিয়ে বহাল তবিয়তে এ গহিত কাজ করিতেছে। এ বিষয়ে সড়ক ও জনপথ বিভাগের শ্যামনগরের দাড়িত্বে থাকা কার্যসহকারী গৌরপদ সরকার বলেন, ইতোপূর্বে রুহুল আমিন মোড়লকে কয়েকবার আমিও আমার সহকর্মী বরুন কুমার বসু মৌখিক ভাবে এবং উপবিভাগীয় প্রকৌশলী সাতক্ষীরা অফিসিয়াল নোটিশ এর মাধ্যমে সতর্ক করার পরও সম্পূর্ন গায়ের জোরে এ কাজ করছে যাহা সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের আইন বহির্ভূত। আইন অমান্য করে গায়ের জোরে কিভাবে পাকা ও স্থায়ী ইমারাত তৈরি করছে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ বিষয়ে জরুরীভাবে উপ বিভাগীয় কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে, তিনি দ্রুত সময়ের মধ্যে ব্যবস্থা নিবেন।
কিছুদিন পূর্বে মুন্সীগঞ্জ গ্যারেজে সড়ক জনপদের কর্মকর্তাদের সহযোগিতায় ৫ রুম বিশিষ্ট নির্মাণের কাজ শেষ করেছে। সড়ক জনপদ পদক্ষেপ নেয়ার কথা বলেও কাজ শেষ করা পর্যন্ত সহযোগিতা করে অবৈধ দখলদারদের। বিষয়টি বারবার জানিয়েও ফল পাওয়া যায়নি সড়ক জনপথ এর কর্মকর্তাদের কাছ থেকে। বিষয়টি নিয়েমোবাইল ফোনে রুহুল আমিন মোড়লের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি এব্যাপারে কিছু বলতে চাই না। আমি একজন সাংবাদিকের দোকানে বসে আছি, তুমি তার সাথে কথা বল বলেই ফোনটি তার কাছে ধরিয়েদেন। ঐ সাংবাদিক বলেন আমি তোমার (ওমুক) চাচা, তোমাকে নিউজটা করতে নিষেধ করতে পারি না তবে সবাইতো এভাবে করছে তাই আমাদের সবার সাথে সুসম্পর্ক বজায়রেখে কাজ করা ভালো। আর তুমি আমার দোকানে এস এ ব্যাপারে কথা হবে।

রিলেটেড পোস্ট

মতামত দিন

error: Content is protected !!