স্থিতিশীল ও সাংবাদিক বান্ধব প্রেসক্লাব চাই- ডাঃ এ টি এম রফিক উজ্জল

0 ২০৩

সাংবাদিকবান্ধব, স্থিতিশীল, ক্ষমতার সুষম বন্টন, সততা, কালোবাজারি সখ্যতামুক্ত ও ভূমিদস্যূদের দৌরাত্মমুক্ত প্রেসক্লাবের নেতৃত্ব সাতক্ষীরার ২৫ লক্ষ মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারে

নিজস্ব প্রতিবেদক: স্থিতিশীল-সাংবাদিকবান্ধব ও সৎ নেতৃত্বই সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবকে এগিয়ে নেবে। রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ সাংবাদিক ও সংবাদপত্র। গতকাল শুক্রবার এক মতবিনিময় সভায় সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেন, দৈনিক কাফেলার সম্পাদক ডাঃ এ টি এম রফিক উজ্জল।
সম্মিলিত সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের নির্বাচন-২০২১ পরিচালনা কমিটির উপদেষ্টা দৃষ্টিপাতের সম্পাদক জি এম নূর ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বাসসের জেলা প্রতিনিধি এ্যাড. অরুন ব্যানার্জী, প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতবেদক কল্যাণ ব্যানার্জী, সুপ্রভাত সাতক্ষীরার সম্পাদক এ কে এম আনিছুর রহমান, যুগের বার্তার সম্পাদক আ ন মোঃ আবু সাঈদ, যুগের বার্তার নির্বাহী সম্পাদক হাবিবুর রহমান হবি, স্টাফ রিপোর্টার আমিনুর রশিদ, সাপ্তাহিক মুক্ত স্বাধীনের সম্পাদক আবুল কালাম, সময় টিভির মমতাজ আহমেদ বাপী, দৃষ্টিপাতের আবু তালেব মোল্লাহ প্রমুখ।
কাফেলা সম্পাদক ডাঃ এ টি এম রফিক উজ্জল আরও বলেন, সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের নতুন নেতৃত্বকে সততার পরিচয় দিতে হবে। কোন ভাবেই তারা কলোবাজারীদের স্বার্থ সংরক্ষন করবেন না। তারা ভূমিদস্যুদের দৌরাত্ম মুক্ত থাকবেন।
বাপী-হাবিব-সুজন পরিষদের উদ্দেশ্যে কাফেলা সম্পাদক বলেন, ১৩ জন জয়ী হলে পরিষদের ৫৮জন জিতবে এবং ৫৮ জন জিতলে প্রেসক্লাবের ১০৪ জন সদস্য জয়লাভ করবেন। আর ১০৪জন সদস্য জিতলে জেলার ২৫লক্ষ জনতা জিতবে।
তিনি আরও বলেন, অপনারা জয়ী হলে ক্ষমতা কুক্ষিগত না সুষম বন্টন করবেন। অর্থাৎ আপনারা ক্লাবের ১০৪জন সদস্যকে ক্ষমতাবান করবেন। তাহলেই কেবল ঐক্য ধরে রাখা সম্ভব হবে।
ডাঃ রফিক উজ্জলের বক্তবের সময় করতালি দিয়ে অভিবাদন জানান সাংবাদিকরা।
বাসসের জেলা প্রতিনিধি এ্যাড. অরুণ ব্যানার্জী একটি গল্পের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, প্রতিপক্ষকে দূর্বল ভাবা ঠিক হবে না। আপনাদেরকে কঠোর পরিশ্রম করে বিজয় ছিনিয়ে আনতে হবে।
প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক কল্যাণ ব্যানার্জী বলেন, নানাভাবে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। সবাই সজাগ থাকবেন। কোন অপ-প্রচারই আমাদের বিজয়কে রুখতে পারবে না। তিনি কাফেলা সম্পাদক ডাঃ রফিক উজ্জলের বক্তব্যের তারিফ করেন।
দৈনিক দৃষ্টিপাতের সম্পাদক জি এম নূর ইসলাম তার সমাপ্তি বক্তব্যে বলেন, আজকের যে ঐক্য তৈরী হয়েছে তা ধরে রাখতে হবে।
সুপ্রভাতের সম্পাদক এ কে এম আনিছুর রহমান বলেন, বাপী-হাবিব-সুজন পরিষদের জয় সময়ের ব্যাপার মাত্র। তিনি সকলকে সজাগ করে বলেন, আপনারা সবাই পূর্ণ প্যানেলে ভোটধিকার প্রয়োগ করবেন।
যুগের বার্তার সম্পাদক আ ন মোঃ আবু সাঈদ বলেন, প্রেসক্লাবকে গতিশীল করতে আমাদেরকে কাজ করতে হবে। টাইম টু টাইম যে নির্দেশনা দেয়া হবে সেটি সবাই ফলো করবেন।
এ ছাড়াও আরও বক্তব্য দেন বিটিভির মোজাফ্ফর রহমান, মাছরাঙা টেলিভিশনের মোস্তাফিজুর রহমান উজ্বল, বাংলাদেশ প্রতিদিনের মনিরুল ইসলাম মনি, নিউজ ২৪ এর শাকিলা ইসলাম জুই প্রমুখ।


error: Content is protected !!