১১ বছরের সংসার ভাঙ্গলেন দিয়া মির্জা-সাহিল

কর্তৃক Ahadur Rahman Jony
০ কমেন্ট 16 ভিউস

সাতনদী অনলাইন ডেস্ক : সংসার ভাঙ্গা-গড়া নতুন কিছু নয়। বলিউড সেলিব্রেটিদের কাছে এটা এনজয় মুহুর্ত মনে করে থাকেন। সম্পর্ক তাদের জীবনের একটা পার্ট।

গত ফেব্রুয়ারিতেও দু’জনে একসঙ্গে বেড়াতে গিয়েছিলেন। দু’সপ্তাহ আগে স্বামীর জন্মদিনে সাহিল সাংঘার ছবি পোস্ট করে দিয়া মির্জ়া লিখেছিলেন, ‘প্রেশাস ওয়ান’। এর মধ্যে এমন কী ঘটল যে, বিবাহবিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিলেন দিয়া-সাহিল?

বৃহস্পতিবার সকালে দিয়া এবং সাহিল দু’জনেই সোশ্যাল মিডিয়ায় বিবৃতি দিয়ে জানান, তাঁদের এগারো বছরের সম্পর্ক শেষ করছেন। বিবৃতিতে দিয়া ও সাহিল লিখেছেন, ‘সম্পর্ক শেষ করলেও আমাদের বন্ধুত্ব থাকবে।’ কিন্তু ঠিক কী কারণে তাঁরা বিবাহবিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিলেন, তা স্পষ্ট করেননি। দিয়া-সাহিলের বিচ্ছেদ নিয়ে বলিউডে ইতিমধ্যেই গুঞ্জন শুরু হয়ে গিয়েছে। শোনা যাচ্ছে, ‘জাজমেন্টাল হ্যায় কেয়া’ ছবির চিত্রনাট্যকার কণিকা ধিলোঁর সঙ্গে একটি সম্পর্ক রয়েছে সাহিলের। এক মাস আগেই নাকি দিয়া সেই সম্পর্কের বিষয়ে জানতে পারেন। তার পর থেকেই দিয়া আর সাহিলের মধ্যে দূরত্ব তৈরি হয় বলে খবর।

২০১৪ সালে দিয়া বিয়ে করেন তাঁর দীর্ঘ দিনের বিজ়নেস পার্টনার ও প্রেমিক সাহিলকে। বিয়ের আগে অনেক দিন তাঁরা লিভ-ইনও করেছেন। বলিউডের আদর্শ দম্পতি হিসেবে দিয়া-সাহিলের কথা উল্লেখ করা হত। কিন্তু সেখানে যে এমন ভাঙন ধরেছে, তা আগে কেউ আঁচ করতে পারেননি।

‘জাজমেন্টাল হ্যায় কেয়া’র পরিচালক প্রকাশ কোভেলামুড়ির প্রাক্তন স্ত্রী কণিকা। তাঁদের সম্পর্কও দু’বছর আগেই ভেঙে যায়। বলিউড ইন্ডাস্ট্রি সূত্রে খবর, প্রায় মাস ছয়েক ধরে সাহিল ও কণিকা ডেট করছেন। দিয়া বিন্দুবিসর্গও জানতে পারেননি। জানার পরে সম্পর্ক শেষ করার সিদ্ধান্ত নেন অভিনেত্রী। বিবৃতিতে তাঁরা স্পষ্ট বলেছেন, ভবিষ্যতে এ বিষয়ে মন্তব্য করবেন না।

রিলেটেড পোস্ট

মতামত দিন

error: Content is protected !!